পাগলাপীরে যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল বন্ধে কাউন্টার ব্যবসায়ীদের দূর্দিন চলছে।


হাবিবুর রহমান সেলিম, পাগলাপীরঃ রংপুরের ব্যস্ততম বানিজ্যিক বন্দর পাগলাপীরে বাস কোচ সহ দূর পাল্লার যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল বন্ধ হওয়ায় কাউন্টার ব্যবসায়ীদের জীবন যাপন দূর্দিন চলছে। জানাগেছে সাম্প্রতি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় পাগলাপীর সহ দেশ জুড়ে চলছে লক ডাউন। অব্যাহত লক ডাউনের কারনে রাজধানী ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, ময়মনসিংহ, বরিশাল, খুলনা, রাজশাহী ও রংপুর সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তগামী বাস কোচ যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল বন্ধ হয়েছে। এর ফলে পাগলাপীর বন্দরের বিভিন্ন কাউন্টারে সরকারী বেসরকারী গার্মেন্টস সহ সমাজের নানান পেশায় জড়িত কর্মজীবি নারী-পুরুষ যাত্রীদের আনাগোনা পদচারনা না থাকায় কাউন্টার ব্যবসায়ীদের জীবন যাপন চলছে অর্থ সংকটে, অনাহারে, অদ্যাহারে। স্বরজমিনে পাগলাপীর বন্দরের রংপুর-দিনাজপুর-ঢাকা হাইওয়ে রোডস্থ কোচ ষ্টান্ডের অপু ক্লাসিক কাউন্টারের ম্যানেজার মোঃ সেলিম শেখ ও মিম কাউন্টারের ম্যানেজার বাটুল মিয়া সহ বিভিন্ন কাউন্টার ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ দুঃখ প্রকাশ করে বলেন মরনব্যাধী রোগ করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় অব্যাহত লক ডাউনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগনকে বিশেষ করে মটর শ্রমিক সহ শ্রমিক পেশায় জীবিকা নির্বাহ কারীদের পূর্নবাসন কিংবা তাদেরকে রক্ষায় ত্রান বিতরন সহ নানা কর্মসূচি গ্রহন করেছেন। সেই কর্মসূচির আওতায় পাগলাপীরের মটর শ্রমিক তথা কাউন্টার ব্যবসায়ীরা মাত্র একদিন ১০ কেজি করে চাল পেয়েছেন। অথচ লক ডাউন চলছে গত ২৬ শে মার্চ হতে ৪৫ দিন ধরে। যা ওই ১০ কেজি চাল দিয়ে একটি পরিবারের ৪৫ দিন ধরে চলা অসম্ভব। পাগলাপীরের অপু ক্লাসিক কাউন্টার সহ বিভিন্ন কাউন্টার ব্যবসায়ীদের দাবী লক ডাউন শিথিল করে সরকারী নিয়ম নীতির মধ্যে যাত্রীবাহী বাস কোচ চলাচলের অনুমতি প্রদান, অন্যথায় শ্রমিক পরিবারের সদস্যের সংখ্যা অনুযায়ী চাল এর পাশাপাশি, তেল,চিনি,লবন, ডাল,আটা, ময়দা, রসুন,পিঁয়াজ ভোগ্যপন্য খাদ্য দ্রব্য নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র ত্রান সামগ্রী হিসেবে বিতরনের জন্য সরকার সহ সংশ্লিষ্ট মহলে প্রতি দাবী জানিয়েছেন।

পুরোনো সংবাদ

রংপুর 7427069010516588364

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item