সুন্দরগঞ্জে চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত


নুরুল আলম ডাকুয়া, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার এক চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন। তার বাড়ি উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের পশ্চিম শিবরাম গ্রামে। তিনি সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাক্তন আবাসিক মেডিকেল অফিসার।

শনিবার দুপুরে ওই চিকিৎসক করোনা আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত হন। এ ঘটনায় তার সংস্পর্শে আসা পরিবারের সদস্য, রোগী ও অন্যান্য চিকিৎসক-নার্সদের চিহ্নিত করছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

জানা গেছে, গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে কর্মরত ওই আবাসিক চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন। তিনি বিভিন্ন সময় করোনা আক্রান্তের নমুনা সংগ্রহ করেছেন। সম্প্রতি ওই চিকিৎসক সর্দি, জ্বর ও গলা ব্যাথায় ভুগছিলেন। পরে করোনার উপসর্গ দেখা দেয়ায় নমুনা পরীক্ষা করান তিনি। এতে রমেক হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব টেস্টে তার করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। এ ঘটনায় ওই চিকিৎসককে সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। 

এদিকে, করোনা আক্রান্ত ওই চিকিৎসক বিভিন্ন সময়ে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়মিত রোগী দেখতেন বলে জানা গেছে। এতে চিকিৎসা সেবা নেয়া রোগী ও তাদের স্বজনরা আতঙ্কে রয়েছেন। যদিও সেই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তিনি গত ১৪ মার্চ সর্বশেষ রোগী দেখেছেন। এরপর আর তিনি চেম্বারে আসেননি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গাইবান্ধার সিভিল সার্জন এবিএম আবু হানিফ বলেন, ওই চিকিৎসককে আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে তিনি রোগীর চিকিৎসা দেয়ার সময় সুরক্ষা সরঞ্জাম পরেই সেবা দিয়েছেন। তারপরও ওই চিকিৎসকের সংস্পর্শে আসা রোগী ও ডাক্তার-নার্সদের চিহ্নিত করে হোম কোয়ারেন্টােইন নিশ্চিত করা হচ্ছে। আর সুন্দরগঞ্জে তার ব্যক্তিগত চেম্বারে কবে চিকিৎসা দিতে গিয়েছিলেন সেটার খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

পুরোনো সংবাদ

হাইলাইটস 1846066869314928562

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item