ডোমার উপজেলার ট্রেনের কুলি ও হোটেল শ্রমিকদের করুন অবস্থা


এ.আই.পলাশ.চিলাহাটি,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার ডোমার স্টেশন ও চিলাহাটি রেলস্টেশনের ট্রেনের মালামাল লোড-আনলোডের কুলি শ্রমিক ও ডোমার উপজেলার ৫’শতাধিক হোটেল শ্রমিকরা তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে বড় কষ্টে দিনযাপন করছে। পরিবার পরিজনদের মুখে আহার যোগাতে অনেক হোটেল শ্রমিক ও ট্রেনের কুলি বাধ্য হয়ে রিক্সসা, ভেন চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছে। জানা গেছে, গত ২৬শে মার্চ ২০২০ইং সারা বাংলাদেশের ট্রেন ও বাস যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর ডোমার ও চিলাহাটি রেল স্টেশনের প্রায় ৬০/৭০জন ট্রেনের কুলি বেকার হয়ে পরে। এই দীর্ঘদিন ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ থাকার পর এই পরিবারগুলোর অবস্থা নাজুক হয়ে পরে। অনেক শ্রমিক বাধ্য হয়ে স্ত্রী, সন্তানদের বাঁচাতে ভিন্ন কাজ বেছে নিয়ে কোন রকমভাবে দিন কাটাচ্ছে। অপরদিকে, ডোমার উপজেলার বিভিন্ন ছোট-বড় হাট-বাজারে অসংখ্য হোটেল ও রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানগুলোতে বহু শ্রমিক কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছে। আজ বাংলাদেশে করোনার মরন থাবায় সব ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যাওয়ার পথে বসেছে। আর শ্রমিকরা বেকার হয়ে পরিবারদের নিয়ে বড় কষ্টে দিনযাপন করছে। এ ব্যপারে ডোমার ও চিলাহাটির ট্রেনে মালামাল লোড-আনলোডের কুলি শ্রমিক ও বেশকিছু হোটেল শ্রমিকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, তাদের এই দুর্দিনের কথা অনেকেই মন্তব্য করে বসেন, যেকোন নির্বাচন এলেই প্রার্থীরা সবাইকে আপন করে নিয়ে বিভিন্ সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করে। আজ তাদের কেউ খোজখবর নেয় না। সরকারের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত ত্রান প্রদান করা হচ্ছে। অথচ প্রশাসনের লোকজন এই নি¤আয়েরœ শ্রমিকগুলোর প্রতি একটু সু-দৃষ্টি দিত, তাহলে হয়ত পরিবার-পরিজন নিয়ে তারা একটু শান্তিতে দিন কাটাত। অপরদিকে, যে সকল রাজনৈতিক দলের নেতা রয়েছেন তারা যদি বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের শ্রমিকদের তালিকা নিয়ে ত্রানের বন্দবস্ত করত, তাহলে হয়ত সংগঠনগুলোর সদস্যদের মধ্যে কিছুটা শান্তি আসত

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 7804046206590320089

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item