প্রাথমিক শিক্ষার জন্য বকেয়া উপবৃত্তি ও স্কুল ফিডিং কর্মসুচির বিস্কুট।


খন্দকার এইচ আর হাবিব-       
সমগ্র বাংলাদেশে ভয়াল করোনা ভাইরাসের কারনে দেশ এখন অবরুদ্ধ।  এ কারনেই অতি কষ্টে দিনা নিপাত করছে দরিদ্র পরিবারগুলো। ত্রানের অপেক্ষায় প্রহর গুনছে গ্রামাঞ্চলের কর্মহীন মানুষ। গত ১৬ই মার্চ থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলো বন্ধ রয়েছে। অভিভাবকদের দারিদ্রতার কারনে ভালো নেই শিক্ষার্থীরাও। তাই শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি বকেয়া অক্টো- ডিসেম্বর/২০১৯ এবং জানু-মাচ মোর্ট ছয় মাসের উপবৃত্তির টাকা এই দুঃসময়ে প্রদান করলে শিক্ষার্থী এবং অভিভাবক উভয়ের জন্যই সহায়ক হতো। সেই সঙ্গে দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং কর্মসুচির উচ্চ শক্তি সম্পন্ন বিস্কুট বিতরন যা ইতিমধ্যে বন্ধ রয়েছে তা সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরন চালু করা হোক এতে করে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের পুষ্টি গুন বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। তাছাড়া হঠাৎ করে স্কুল বন্ধ হওয়ায় বিভিন্ন বিদ্যালয়ে স্কুল ফিডিং এর জন্য স্টক বিস্কুট গুলো মেয়াদ উত্তির্ণ হওয়া থেকে রক্ষা পাবে। বিষয়টি প্রাথমিক ও গনশিক্ষা বিভাগের দ্বায়িত্বশীল ব্যাক্তিদের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।  
লেখকঃ
খন্দকার হাবিবুর রহমান হাবিব
প্রধান শিক্ষক, মৌলভীর ডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
পার্বতীপুর, দিনাজপুর। ০১৭১২৫০৮৯৯৫।

পুরোনো সংবাদ

মুক্তমত 2787430835218604220

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item