বিদ্যালয় মাঠ নয় যেন ছোটখাটো পুকুর

মোঃ শামীম হোসেন বাবু,কিশোরগঞ্জ(নীলফামারী)সংবাদদাতাঃ দুর থেকে দেখলে মনে হয় ছোটখাটো একটি পুকুর। এটি কোন পুকুর বা ডোবা নয় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ । যে মাঠে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা করার কথা সেখানে বছরের পর বছর ধরে খেলা করে হাঁসের দল । এ অবস্থা নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের শহীদ শরিফুল ইসলাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের।
গত সোমবার সকালে বিদ্যালয়টিতে গেলে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক শওকত আলী বলেন, এই গ্রামের সমাজসেবক শিক্ষানুরাগী শমসের আলী ১৯৮৫ সালে ৩৫ শতক জমির উপরে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিা করেন। বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩০ জন। শিক্ষক ৫ জন। ১৯৯৩ সালে সরকারী অর্থায়নে তিন কক্ষ বিশিষ্ট ভবন নির্মান করা হয়। সেই সময় বিদ্যালয় মাঠের দক্ষিন পাশ্ব থেকে মাটি এনে ভবনটির কক্ষগুলো ভরাট করা হয়। পরে ২০১০ সালে আরো একটি তিন কক্ষ বিশিষ্ট ভবন নির্মাণ হলেও পুকুরটি ভরাট করা হয়নি। ফলে দক্ষিন দিকের ভবনটি দেবে গেছে। বর্তমানে ওই ভবনটির শুধু একটি কক্ষে ভয়ে ভয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেয়া হয়।
বিদ্যালয়টির সহকারী শিক্ষক সুলতানা পারভিন বলেন, মাঠের চারিদিক উচুঁ হওয়ার কারনে বর্ষার সময় সব পানি এসে গোটা বিদ্যালয়টি মাঠটি পানিতে পরিপুর্ণ হয়ে যায়। বিদ্যালয় মাঠে সারাক্ষন পানি জমে থাকার কারনে কেঁচো সাপসহ বিভিন্ন পোকামাকড় বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কক্ষে ঢুকে পড়ে। তখন কোমলমতি শিক্ষার্থীরা স্কুল বিমুখ হয়ে পড়ে। আমরা কয়েকবার এ বিদ্যালয়টির মাঠটি ভরাট করার জন্য উর্দ্ধতন কর্তপক্ষকে অবহিত করেছি কিন্তু কোন কাজ হয়না।
বিদ্যালয়টির চতুর্থ শ্রেনীর শিক্ষার্থী সাবরিন পঞ্চম শ্রেনীর শিক্ষার্থী নাজমা আক্তার বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বিদ্যালয় মাঠটিতে পানি জমে থাকার কারনে বিদ্যালয়ে আসতে মন চায়না। 
শিক্ষার্থীর অভিভাবক আমজাদ হোসেন, আনছার আলী বলেন, শুনেছি  ২০১৮-১৯ অর্থবছরে এ উপজেলায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সমুহ সংস্কারের নামে প্রায় দুই কোটি টাকা বরাদ্দ এসেছিল কিন্তু  এই  বিদ্যালয়টির পুকুর ভরাটের জন্য কোন বরাদ্দ আসেনী। ফলে বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থী অভিভাবক এবং শিক্ষকগন সব সময় আতঙ্কের মধ্যে থাকে না জানি কখন কোন শিক্ষার্থী পুকুরের পানিতে পড়ে গিয়ে বড় ধরনের বিপদ ডেকে আনে।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শরিফা আক্তার বলেন, বিদ্যালয় সংস্কারের জন্য যে পরিমান বরাদ্দ আসে তা দিয়ে ওই বিদ্যালয় মাঠটি ভরাট করা সম্ভব হবেনা। এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদের সাথে কথা বলে এডিপি থেকে  বরাদ্দ নিয়ে মাঠটি ভরাট করা হবে।

পুরোনো সংবাদ

শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন 4989381952990049772

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item