স্বামী-স্ত্রী'র ভিক্ষায় জোটে পেটের আহার।। বয়স্ক ভাতা মেলেনি ৮০ উর্দ্ধ বৃদ্ধার

হাফিজুর রহমান হৃদয়,কুড়িগ্রামঃ 

তৈল মাথায় সবাই তৈল দেয়। টাকা দিলে বয়স্ক ভাতার কার্ড হয়, না দিলে হয় না। আক্ষেপের সাথে দীর্ঘ শ্বাস নিয়ে এভাবেই কথা বলছিলেন, ৮০ উর্দ্ধ বয়সের বৃদ্ধা আজগার আলী। ৯ সন্তানের জনক আজগার আলীর বাড়ি কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের ডুংডুংগির বাজার এলাকার ডাক্তার পাড়া গ্রামে।

জানা যায়, ৫ ছেলে ৪ মেয়ে ও স্ত্রী নিয়েই তার সংসার। তবে সর্ব কনিষ্ঠ মেয়েটি বাড়িতে রয়েছে ও বাকী ৩ মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন।
ছেলেরা বিয়ে করে আলাদা সংসার করছেন। বয়সের ভারে অন্য কোন কাজ করতে না পাড়ায় জীবন বাঁচার তাগিদে বেঁচে নিয়েছেন ভিক্ষা বৃত্তি ও বাড়ি থেকে দেড় থেকে দুই কিলোমিটার দূরে ভাংড়ির বাজার নামক একটি বাজারে পরিচ্ছন্নতা কর্মী হিসেবে কাজ করেন। দোকানদাররা কাজের বিনিময়ে বিকেল বেলা তাকে ৫টা করে দেন। একদিন ভিক্ষা বৃত্তি করেন আর একদিন বাজারে পরিচ্ছন্নতার কাজ করেন। যা আয় করেন তা দিয়েই কোনরকমেই চলছে তার সংসার। এভাবেই জীবন অতিবাহিত করছেন তিনি। একটি বয়স্ক ভাতার কার্ডের জন্য জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে না পেয়ে। শেষ পযর্ন্ত বয়স্ক ভাতার কার্ডের আশাই ছেড়ে দিয়েছেন।

সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের ভাংড়ির বাজারে বৃদ্ধ আজগার আলীকে পরিচ্ছন্নতার কাজ করতে দেখা যায়।

বাজারের দোকানী-  বাদশা মিয়া, ইউনুছ আলী ও আব্দুস সোবহান বলেন, আজগার আলীকে আমরা অনেক দিন ধরে চিনি।  তিনি এই বাজারে পরিচ্ছন্নতার কাজ করেন ও ভিক্ষা করেন। যারা স্বচ্ছল তাঁরাই বয়স্ক ভাতার কার্ড পায়। আর যারা প্রকৃতভাবে বয়স্ক ভাতার কার্ড পাওয়ার যোগ্য তারাই বঞ্চিত হয়। তার বাস্তব প্রমাণ এই আজগার আলী।

আজগার আলী বলেন, আমি ভিক্ষা করি ও আমার স্ত্রীও ভিক্ষা করেন। এছাড়া বাজার পরিষ্কারের কাজ করি। বিনিময়ে দোকানররা আমাকে ৫টাকা করে দেন। তা দিয়ে কোন রকমে চলে সংসার। কিন্তু এই বৃদ্ধ বয়সে এ রকম ভারী কাজ আর করতে পারছি না। তিনি আরও বলেন, তৈল মাথায় সবাই তৈল দেয়। টাকা দিলে বয়স্ক ভাতার কার্ড হয়, না দিলে হয় না। আমি নাকি স্বচ্ছল। আমার নাকি অনেক কিছু আছে। এই জন্য আমাকে বয়স্ক ভাতার কার্ড দিবে না।

এ বিষয়ে কুড়িগ্রাম সদর ভোগডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোঃ সাইদুর রহমান বলেন, উনি কখনো আমার কাছে আসে নি। উনি আমার কাছে আসলে আমি বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দেয়ার চেষ্টা করব। 

পুরোনো সংবাদ

কুড়িগ্রাম 2062153560273818406

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item