সৈয়দপুরে ট্রেনের নিচে পড়ে নরসুন্দরের আত্মহত্যা

তোফাজ্জল হোসেন লুতু,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি:
 নীলফামারীর সৈয়দপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে ট্রেনের নিচে পড়ে এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে। আজ শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা পৌণে একটার দিকে শহরের উপকন্ঠে ওয়াপদা রেলক্রসিংয়ের উত্তরে সৈয়দপুর - চিলাহাটি রেলপথে এ আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত ব্যক্তির নাম রতন চন্দ্র শীল (৪৫)।
তিনি পেশায়  ছিলেন একজন নরসুন্দর।
  সৈয়দপুর রেলওয়ে থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে,উপজেলার  ৪ নম্বর বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের পুরাতন পোড়ারহাট নাপিতপাড়ার স্বর্গীয় সুবোল চন্দ্র শীলের ছেলে রতন চন্দ্র শীল। তিনি ঘটনার দিন গতকাল শনিবার উল্লিখিত এলাকায় রাজশাহী থেকে ছেড়ে  আসা চিলাহাটিগামী আপ আন্তঃনগর তিতুমীর এক্সপ্রেস কাটা পড়েন। আর এতে তাঁর শরীর দ্বিখন্ডিত হয়ে  মস্তিষ্ক সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। পরে আশপাশের থাকা লোকজন ঘটনাটি টের পেয়ে সৈয়দপুর রেলওয়ে থানা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে জিআরপি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন। এ ঘটনার পর পরিবারের সদস্যরা  রতনের লাশের ময়নাতদন্ত ছাড়াই সৎকারের আবেদন জানান। পরে তাদের আবেদনরে পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ তাঁর পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পারিবারিক কলহের জের ধরে তিনি  রেলওয়ে লাইনের শুয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা গেছে। নিহত রতনের স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। গত বুধবার তাঁর মেয়ে বিয়েও দেন তিনি। সে নরসুন্দর পেশায় জড়িত। তাঁর এ আত্মহত্যার  পরিবারের সদস্যদের আহাজারিতে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছেন।
 সৈয়দপুর জিআরপি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. কায়কোবাদ জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা হয়েছে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1830137101202517812

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item