হাবিপ্রবিতে করোনা ভাইরাসের উপর সেমিনার অনুষ্ঠিত

মোঃ আব্দুস  সাত্তার, দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ 
দিনাজপুরে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় অডিটেরিয়াম- ২ তে ÒCorona Virus Infection- Preparedness and Precaution” শীর্ষক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদার, ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্স অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. এস, এম, হারুন উর-রশীদ এবং রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. খালেদ হোসেন। অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ এর সহযোগী অধ্যাপক ডা. যোগেন্দ্র নাথ সরকার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্স অনুষদের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর  ড. মো: মোস্তাফিজার রহমান।
অনুষ্ঠানে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. খালেদ হোসেন বলেন চীন থেকেই এই ভাইরাসের উৎপত্তি। ইতোমধ্যে এই ভাইরাস বিশ্বের ২৫ টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।  আমাদের প্রতিবেশি দেশ ভারত, শ্রীলঙ্কাতেও এই ভাইরাস ধরা পড়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশও অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। এই ভাইরাসের উপস্থিতির উপসর্গ পাওয়া গেলেই তাদের আইসোলেশনে রাখা হচ্ছে। তিনি তার উপস্থাপনায় করোনা ভাইরাস এর উৎপত্তি, প্রকৃতি, বংশবৃদ্ধি, ছড়ানোর প্রক্রিয়া, কিভাবে এর থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যাবে এসব বিষয়ের উপর গুরুপ্ত দেন। তিনি আরো বলেন, কারো মাঝে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ (জ্বর, সর্দি, শ্বাসকষ্ট বা ঘন ঘন নিঃশ্বাস নেয়া) এসব দেখা দেয়া মাত্রই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া ভালো। 
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম বলেন, বিশ্ব একটি দুর্যোগের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এ সমস্যা এখন আর শুধু চীনের নয়। এটি এখন সারা  বিশ্বের সমস্যা। আমাদের অনেক শিক্ষার্থী চীনে পড়াশুনার জন্য অবস্থান করে, আবার অনেক চীনা নাগরিক বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের জন্য আমাদের দেশে অবস্থান করছে। তাই আমরাও এর ঝুঁকির বাহিরে না। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকার ইতোমধ্যেই ব্যাপক সতর্কতা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে, পাশাপাশি আমাদের নিজেদেরকেও সতর্ক থাকতে হবে। সভাপতির বক্তব্যে মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর  ড. মো: মোস্তাফিজার রহমান বলেন। সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে আমরা এই সেমিনারের আয়োজন করেছি। আমাদের সকলের উচিৎ এ ব্যাপারে  প্রচারণা চালিয়ে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলা। এ সময় তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রধান অতিথিসহ সকলের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। উক্ত সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। 

পুরোনো সংবাদ

স্বাস্থ্য-চিকিৎসা 8614754730086485136

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item