নীলফামারীতে বঙ্গবন্ধুর শতবার্ষিকী ক্ষণগণনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মানুষের ঢল


নীলফামারী প্রতিনিধি ১০ জানুয়ারি॥ শীত উপেক্ষা করে জনসাধারণ মানুষের উপচে পড়া ভীর ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকীর ক্ষণগণনার সম্প্রচার অনুষ্ঠানে। আজ শুক্রবার(১০ জানুয়ারি/২০২০) সন্ধ্যায় জেলা শহরের বঙ্গবন্ধু চত্বরে তিন সহস্রাধিক মানুষ উপভোগ করেছেন ওই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি। বিকাল ৫টায় তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে (জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ড) লোগো উন্মোচন, ঘড়ি চালুর মধ্যদিয়ে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই সঙ্গে নীলফামারী সেই সঙ্গে জেলা প্রশাসন ক্ষণগণনার যন্ত্রও স্থাপন করেন সেখানে।

এছাড়াও প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়নের পাবলিক ¯'ানে একইসঙ্গে ক্ষণগণনা শুরু হয়। সারাদেশের ১২টি সিটি করপোরেশনের ২৮টি জায়গা, বিভাগীয় শহর, ৫৩ জেলা, দুই উপজেলা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ রাজধানীতে মোট ৮৩টি  স্থানে  একসঙ্গে ক্ষণগণনার ঘড়ি চালু করা হয়েছে। 
প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ক্ষণগণনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সেখানে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠানটি ধৈর্য্যসহকারে উপভোগ করেন সকলে। 
ঐতিহাসিক ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দেশে ফেরার প্রতীকী অবতরণ দেখে কেঁদেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কেঁদেছেন তার বোন শেখ রেহানাও। ঠিক সেই সময় বজ্যকন্ঠে “জয় বাংলা” শ্লোগানটি। 
বিকালে ক্ষণগণনার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সম্প্রচারস্থলে উপস্থিত  ছিলেন জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান, ৫৬ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেন মো. মামুনুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজাহারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) খন্দকার নাহিদ হাসান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মুরাদ বেগ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবুল বাশার মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নীলফামারী সার্কেল) রুহুল আমিন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাহিদ মাহমুদ, ভাইস চেয়ারম্যান দীপক চক্রবর্তী, শান্তনা চক্রবর্তী, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এলিনা আকতার, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুজার রহমান, সাধারণ সম্পাদক ওয়াদুদ রহমান প্রমুখ।
জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানান, জেলা শহরের বঙ্গবন্ধু চত্ত্বরে ক্ষণ গণনার যন্ত্র ¯'াপন করা হয়েছে। ১২টি মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে ওই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগ করেছেন সকলে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের দিন অর্থাৎ ১০ জানুয়ারি প্রতিবছরই উদযাপন করে বাঙালি জাতি। কিন্তু এবারই প্রথম ব্যতিক্রমী উদযাপনে রাজধানীর তেজগাঁও জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে বঙ্গবন্ধুর সেই প্রত্যাবর্তনের দৃশ্য প্রতীকীভাবে উপ¯'াপন করা হয়েছে। যা দেখে বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যাসহ সবার মধ্যেই একটি আবেগঘন মুহূর্তের সৃষ্টি হয়। 
তিনি জানান, জেলা সদর, ডোমার, ডিমলা, জলঢাকা, কিশোরীগঞ্জ ও সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর, ৬০টি ইউনিয়ন পরিষদ চত্ত্বরসহ উল্লেখযোগ্য ¯'ান থেকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি সম্প্রচার করা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে এসব ¯'ানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। 
এর আগে দুপুর ১২ টার দিকে আয়োজন¯'ল পরিদর্শণ করেন জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরীসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা। বেলা সাড়ে এগারোটায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলণ কক্ষে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান ক্ষণ গণনা অনুষ্ঠান সম্প্রচারের প্রস্তুতির কথা।  #

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী সদর 2922485174250063456

অনুসরণ করুন

মুজিব বর্ষ

Logo

সর্বশেষ সংবাদ

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item