পাগলাপীরে স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে ওয়ার্ড সভা

হাবিবুর রহমান সেলিম,পাগলাপীর প্রতিনিধিঃ রংপুর সদর উপজেলার পাগলাপীর হরিদেবপুর ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডে স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে জবাবদিহী মুলক ওয়ার্ড সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত মঙ্গলবার বাদ মাগরিব মরহুম পোষ্ট মাষ্টার নজরুল ইসলামের উঠানে ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দ্যোগে বিপুল সংখ্যক নারী পুরুষ ভোটার জনগন সহ বিভিন্ন শ্রেণীর পেশা জীবি মহলের অংশগ্রহনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ওয়ার্ড সভাটি।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হরিদেবপুর ইউনিয়নের সুযোগ্য চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন। সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রোকনুজ্জামান আকবর এর সভাপতিত্বে উক্ত সভায় বক্তব্য রাখেন সংশ্লিষ্ট ৭,৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য মোছাঃ রঞ্জিনা আক্তার আদুরী, ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ, লিয়াকত হোসেন, পাগলাপীর স্কুল ও কলেজ গর্ভনিং বডির সদস্য আওয়ামীলীগ নেতা কাজল মিয়া, আওয়ামীলীগ নেতা শাহ আলম, জাহাঙ্গীর হোসেন, ওয়ার্ডের বাসিন্দা নুর আমিন, সোনা মিয়া সহ আরো অনেকে। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সচিব আবু বক্কর সিদ্দীক, ইউপি সদস্য সওকত হোসেন যাদু, দুলাল মিয়া, সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রার্থী রেজাউল করিম দাদুল, পাগলাপীর প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও আহবায়ক হাবিবুর রহমান সেলিম সহ বিশিষ্ট জনরা। অনুষ্ঠিত ওয়ার্ড সভায় প্রধান অতিথি বক্তব্যে ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন বলেন আমার চেয়ারম্যানী দায়িত্ব গ্রহনের পৌনে ৫ বছর চলছে। এই পৌনে ৫ বছরে ইউনিয়নের রাস্তা-ঘাট, হাট-বাজার, স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা, মসজিদ, মন্দির, মন্ডব ধর্মীয় উপসানলয় প্রতিষ্ঠান সহ নানা সামাজিক উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড করেছি। বিশেষ করে ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের শুধমাত্র মন্ডল পাড়ার ভিতরে একটি (৫০০ফিট) সড়ক ছাড়া ওয়ার্ডের সব রাস্তাঘাট পাকা করন করা হয়েছে। এখন শুধু সড়কগুলো কার্পেটিং করার অপেক্ষায়। তবে অল্প কিছুদিনের মধ্যে সম্ভাবত ডিসেম্বর মাসের দিকে যে কোন গ্রামীন অবকাঠামো প্রকল্পের মাধ্যমে উক্ত মন্ডলপাড়ার ভিতরের কাচা সড়কটি পাকা করন করা হবে এবং ঐ সড়কের মাথায় ফজলুল হক নূরানী মাদ্রাসা ও মসজিদের বিভিন্ন অবকাঠামো সংষ্কার করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন। হরিদেবপুর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে, যা দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়েছে। সেটি নিসন্দেহ আমি দাবী করতে পারি। আমার প্রয়াত পিতা আলহাজ্ব বদিউজ্জামান জামাল, তিনি এই ইউনিয়নের ইউপি সদস্য থেকে ইউপি চেয়ারম্যান এবং পরবর্তীতে সদর উপজেলার চেয়ারম্যান হওয়ার কারনে। তিনি জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব সৎ নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করেছেন। ইউনিয়নের ওয়ার্ড গ্রাম পাড়া মহল্লার রাস্তাঘাট হাট বাজার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ নানা সামাজিক কর্মকান্ডে ব্যপক উন্নয়ন সাধন করেছেন। যার ফলশ্রুতিতে আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিতের পর ইউনিয়নের কোন ওয়ার্ডে সামাজিক কর্মকান্ডে অংশগ্রহন করলে, সেখানকার মানুষজন আমাকে বলে “বাহে তোমরা জামাল চেয়ারম্যানের বেটা, তোর বাবা একজন ভালো মানুষ ছিলেন ” । আমরা যে কেন ব্যাপারে তার কাছে গেলে উনি সব সমস্যার সমাধান করতেন। চেয়ারম্যান ইকবাল হোসন উপস্থিত সকল জনগন ভোটারের উদ্দ্যেশে বলেন আমি তারেই সন্তান। আপনাদের ভালো না বেসে, কি করে থাকতে পারি। আমার শরীরে তারেই রক্তে শ্রোতধারা বইছে। কাজেই হরিদেবপুর ইউনিয়ন বাসীর সঙ্গে আমার পরিবার সুখে দুখে আছে ভবিষ্যতেও থাকবে বলে তিনি অঙ্গিকার করেন। আগামী হরিদেবপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের ইঙ্গিত দিয়ে বলেন সম্ভবত ২০২০ ইং সালের মার্চ মাসে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে। তাই উক্ত ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহনের প্রত্যাশায় উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে উপস্থিত সকল নারী-পরুষ ভোটার জন সাধারনের কাছে দোয়া আর্শিবাদ ও ভোট চান তিনি।

পুরোনো সংবাদ

রংপুর 6223585332443485452

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item