নীলফামারীতে প্রথম আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়, নীলফামারী ॥ রাজধানী ঢাকার মঞ্চ নাটক উৎসবগুলো শুধু ছিল শিল্পকলা একাডেমি কেন্দ্রিক। কখনো কখনো তা বেইলি রোডের মহিলা সমিতি পর্যন্ত যেত। এখন রাজধানীর বাহিরের জেলাগুলোতেও উৎসবের নতুন নতুন জায়গা হয়েছে। উৎসব ছড়িয়ে পড়ছে শহরের নানা প্রান্তে। এমনি বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে আগামীকাল শুক্রবার(১ নভেম্বর) হতে শুরু হচ্ছে উত্তরাঞ্চলের নীলফামারী শহরে ৫ দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব।
মঞ্চ নাটকের পাশাপাশি থাকছে নাট্যকলার পূর্বাপর বিষয়ক সেমিনার। স্থানীয় জলসিঁড়ি নাট্য সংস্থার আয়োজনে এ উৎসবকে ঘিরে  সাংস্কৃতিকর্মীদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। সেই সঙ্গে মঞ্চের সামনে বসে দেশ ও বিদেশের নাট্যসংস্থার পরিবেশিত শিল্পীদের অভিনয় দেখতে মুখিয়ে আছেন নাট্য প্রেমিক দর্শক। প্রথম নাট্য উৎসব ঘিরে বৈচির্ত্র্যময় প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন আয়োজক সংগঠনের সদস্যরা। নাট্যশিল্পীরা মহড়া ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি সাজাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। উদযাপনকে কেন্দ্র করে শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট সেজেছে পোস্টার, ব্যানার আর ফেস্টুনে। চলছে তুমুল প্রচারনার মাইকিং। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও উৎসবের আমেজ। যাঁদের বন্ধুতালিকায় সংস্কৃতি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা নাট্যানুরাগী আছেন,ফেসবুক এখন নাট্যোৎসবময়। সহশিল্পীদের সঙ্গে ছবি, পোস্টার ব্যানার পাশে রেখে সেলফি; চলছেই।
৫ দিন ব্যাপী নীলফামারী আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব/২০১৯ ঘিরে  বৃহস্পতিবার(৩১ অক্টোবর) দুপুরে শহরের জলসিঁড়ি নাট্য সংস্থার কার্যালয় উম্মুক্ত মঞ্চে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন জলসিঁড়ি নাট্য সংস্থার সাধারন সম্পাদক ও এই নাট্য উৎসবের আহবায়ক ওবায়দুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নাট্য উৎসবের যুগ্ন আহবায়ক শাহজাহান, জলসিঁড়ি নাট্য সংস্থার সদস্য সচিব মহিউদ্দিন মহি, সদস্য দৃস্টি প্রামানিক, নবনীতা, বিপ্লব কুমার রায় জার্জিস আলম প্রমুখ।
আন্ত র্জাতিক নাট্য উৎসবের আয়োজক সূত্রে জানা যায়, ভারত আমাদের বন্ধুপ্রতিম দেশ। স্বাধীনতাযুদ্ধে ভারত বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ উপহার দিতে সহযোগীতা করেছে। দুই বাংলা সীমান্তের কাটাতারের বেড়ায় আবদ্ধ থাকলেও মনের ভালবাসা ও আতœার টান রয়েই গেছে। প্রতিবেশী এই দেশের সঙ্গে সাংস্কৃতিক মেলবন্ধন সৃষ্টির লক্ষ্যে এই নাট্য উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় শুক্রবার সকালে চৌরঙ্গী মোড়ের স্বাধীনতার অম্লান স্মৃতি চত্বর হতে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হবে। নাট্যোৎসব উদ্বোধন করবেন উৎসবের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহা পরিচালক ও বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সভাপতি লিয়াকত আলী লাকী। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক কামাল বায়েজীদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মমতাজুল হক। উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন।
শুক্রবার পহেলা নবেম্বর থেকে ৫ নবেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়  জেলা শিল্পকলা একাডেমির  মঞ্চে শুরু হবে নাটক। চারশত আসনের শিল্পকলা একাডেমিতে একই নাটকের দুটি করে শো মঞ্চায়ন করা হবে। কারন ব্যাপক সাড়া পড়েছে নাট্য প্রেমি দর্শকদের। ভিড় সামলাতেই দুটি করে শো প্রর্দশন করা হবে।
উদ্ধোধনের দিন শুক্রবার বাংলাদেশের সায়িক সিদ্দিকীর রচনা ও নির্দেশনায় ভারতের চাকদাহ নাট্যজন মঞ্চায়িত করবে “ভানু সুন্দরীর পালা”। দ্বিতীয় দিন শনিবার মলয় ভৌমিকের রচনা ও নির্দেশনায় রাজশাহীর অনুশীলন নাট্যদল মঞ্চায়িত করবে “বুদে রামের কূপে পড়া”। তৃতীয় দিন রবিবার হর ভট্রাচার্য্যরে রচনায় গৌতম মুখার্জির নির্দেশনায় ভারতের ছন্দম নাট্যগোষ্ঠী মঞ্চায়িত করবে  “মেদেয়ারা”। চতুর্থদিন সোমবার সম্বিক সাহার রচনায় জারজিজ আলমের নির্দেশনায় নীলফামারীর জলসিঁড়ি নাট্য সংস্থা মঞ্চায়িত করবে “হবু রাজার একুল পালন”। সমাপনী দিন মঙ্গলবার রুবায়েৎ আহমেদের রচনায় সুদীপ্ত চক্রবর্তীর নির্দেশনায় ঢাকা পদাতিক নাট্য সংসদ মঞ্চায়িত করবে সৈয়দা শামসি আরা সায়েকার একক পরিবেশনায় নাটক “গহনযাত্রা”।সমাপনীর দিন নাটক শুরুর আগে  নীলফামারীর কয়েকজন সাংস্কৃতিককর্মীকে সম্মাননা দেওয়া হবে। #

পুরোনো সংবাদ

শিল্প-সাহিত্য 3478834601402806455

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item