পীরগঞ্জে ৭৮ জন দপ্তরী নিয়োগে এক জনপ্রতিনিধি ‘একাই একশো’!

কয়েক কোটি টাকা উৎকোচ গ্রহন, নিয়োগে কারো আহাজারি কমবে-কারো বাড়বে, স্বজন ও আ’লীগ বিরোধীদের নিয়োগ

মামুনুর রশিদ মেরাজুল রংপুর ব্যুরোঃ 
প্রায় ৫ বছর পর পীরগঞ্জের ৭৮ টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে দপ্তরী কাম প্রহরী পদে নিয়োগ শুরু হয়েছে। উৎকোচ গ্রহনসহ বিভিন্ন অভিযোগের কারণে ২০১৪ সাল থেকে নিয়োগটি ঝুলে ছিল। ইতিমধ্যেই ৩৩ টি বিদ্যালয়ে নিয়োগ পরীক্ষা হয়েছে। উৎকোচ না দেয়ায় আওয়ামী বিরোধী রাজনৈতিক কর্মী-সমর্থক ও স্বজনদেরকে নিয়োগ দেয়া হবে বলে অভিযোগ উঠেছে। অপরদিকে বিদ্যালয়ে জমিদাতা এবং আ’লীগ সমর্থিত অধিকাংশ প্রার্থী উৎকোচ দিতে না পারায় নিয়োগ থেকে বঞ্চিত হতে বসেছে।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে আউট সের্সিংয়ের মাধ্যমে উপজেলার ২’শ ১৩ টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পর্যায়ক্রমে ‘দপ্তরী কাম প্রহরী’ পদে চুক্তিভিত্তিক জনবল নিয়োগ করা হবে। ইতিপূর্বেই ১’শ ৩৫ টি বিদ্যালয়ে ওই পদে নিয়োগও হয়েছে। আরও ৭৮টি বিদ্যালয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ একাধিকবার নিয়োগে উদ্যোগ নিলেও তা স্থগিত হয়ে যায়। গত বছরের ২২ অক্টোবর উপজেলা বাছাই ও নিয়োগ কমিটির সভাপতি ইউএনও নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেন। নিয়োগ কমিটিতে এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষা অফিসার, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক রয়েছেন। সম্প্রতি ৩ দিনে ৩৩ টি বিদ্যালয়ের নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা হয়েছে।
বিশ্বস্ত সুত্র জানিয়েছে, নিয়োগটি পেতে চাকরী প্রত্যাশীরা জমিজমা, বসতভিটেসহ সর্বস্ব বিক্রি করে স্থানীয় এক জনপ্রতিনিধি ও নিয়োগ কমিটির সদস্যকে (এমপি ব্যতীত) সরাসরি আবার দালালের মাধ্যমে ৬ লাখ থেকে ১১ লাখ টাকা করে প্রায় ৬ কোটি টাকা উৎকোচ দিয়েছে। গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সময় ওই উৎকোচ লেনদেন হয়। এই নিয়োগে কারো আহাজারি বাড়বে, কারো কমবে। কারণ একই বিদ্যালয়ে ৩/৪ জন প্রার্থীর কাছে টাকা নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।
আ’লীগ ঘরানার একাধিক নেতাকর্মী নাম না প্রকাশের শর্তে জানান, সারাজীবন দল করে এবং মেধা থেকেও লাভ নেই। শুধু উৎকোচ দিতে না পারায় চাকরী পাচ্ছি না। আমাদের এমপি স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী আপার হস্তক্ষেপ চাই। কয়েকজন চাকরী প্রত্যাশী বলেন, সর্বস্ব বিক্রি এবং চড়া সুদে টাকা নিয়ে লাখ লাখ টাকা উৎকোচ দিয়েছি। নিয়োগপ্রাপ্তরা প্রতি মাসে ১৪ হাজার ৪৫০ টাকা করে বেতন পাবেন।
সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, স্থানীয় ওই জনপ্রতিনিধি নিয়োগটিতে ‘একাই একশো’ বলে অভিযোগ উঠেছে। তিনি উৎকোচ নিয়ে বিএনপি, জাপা এবং তার স্বজনদেরকে নিয়োগের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। ওই জনপ্রতিনিধি তার শ্যালকের ছেলে রাফিউলকে মোনাইল দুর্গাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে, তার শ্যালিকার নাতি মহিদুল ইসলামকে বড় ফলিয়ায়, তরফমৌজায় স্বজন ওমর ফারুককে নিয়োগ দিচ্ছেন বলে রটেছে। এ ছাড়াও যেসব বিদ্যালয়ে লাখ লাখ টাকা উৎকোচে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে তারা হলো, রাজারামপুরে বিএনপি নেতা জায়দুল হক, জাফরপাড়ায় বিএনএফ নেতা এজিএম মাসুদ সরকার মজনুর ভাই মাসুম বিল্লাহ, ধনশালায় জাপা কর্মী মাসুদ মিয়া, পলাশবাড়ীতে সাদ্দাম হোসেন, রাউৎপাড়ায় আশিদুল ইসলাম, রওশনপুরে মিজানুর রহমানের নিয়োগ প্রায় চুড়ান্ত করা হয়েছে। এভাবে অন্যান্য বিদ্যালয়েও নিয়োগ হতে পারে। ইতিমধ্যেই পরীক্ষার আগেই সম্ভাব্য চুড়ান্ত চাকরী প্রত্যাশীর নাম প্রকাশ হয়ে পড়ায় প্রার্থীরা হতাশ হয়ে পড়েছেন। টুকুরিয়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড আ’লীগের ২৫ বছর সভাপতির দায়িত্ব পালনকারীর প্রয়াত নুরুল ইসলামের ছেলে খোরশেদ আলম জানান, আব্বা সারাজীবন দল করে মারা গেছেন। অথচ অভাবের সংসার থেকে টাকা দিতে না পারায় মোনাইল দুর্গাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আমার চাকরী হচ্ছে না। ধনশালা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জমিদাতার নাতি আ’লীগ নেতা সুমন মিয়া প্রার্থী হলেও তিনি নিয়োগ পাবেন না বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন।
পলাশবাড়ী সঃ প্রাঃ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা উৎকোচ চাওয়ায় ইউএনও’র কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন চাকরী প্রত্যাশী আহসান হাবিবের বাবা আ’লীগ নেতা আব্দুল মজিদ সরকার। তিনি বলেন, আমার ছেলের চাকরীর জন্য প্রধান শিক্ষিকা ৮ লাখ টাকা ঘুষ চেয়েছে। তা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় সাদ্দাম হোসেন নামের একজনের কাছে ১১ লাখ টাকা নিয়ে তাকে চাকরী দিচ্ছে। বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষিকা শাহনাজ বেগম বলেন, আমি কোন টাকা নেইনি। নিয়োগ কমিটির সভাপতি ইউএনও টিএমএ মমিন বলেন, সর্বশেষ নির্দেশনা মোতাবেক মৌখিক পরীক্ষায় মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ হবে। আর উৎকোচ দাবী করায় একজন লিখিত অভিযোগ করেছেন। উপজেলা চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মন্ডল বলেন, নিয়োগ স্বচ্ছ হচ্ছে। উৎকোচ নেয়ার কথা সত্য নয়। স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেন, মেধাবীদের খুঁজে বের করে নিয়োগ দেয়া হবে।

পুরোনো সংবাদ

শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন 7003406219667061641

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item