শোক দিবসের র‌্যালীতে সংঘর্ষের ঘটনায় জলঢাকায় আ’লীগের সভাপতি,সম্পাদকসহ সহস্রাধিক আসামী ॥ গ্রেফতার-৫

মর্তুজা ইসলাম,জলঢাকা,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে নীলফামারীর জলঢাকায় আওয়ামী লীগের শোকর‌্যালীতে হামলা ও দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের একটিসহ তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে। এতে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আনছার আলী মিন্টু,সাধারন সম্পাদক সহীদ হোসেন রুবেল,সাবেক এমপি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাসহ সহস্রাধিক নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। মামলা নম্বর-১৭ তারিখঃ ১৫.৮.১৯ এবং ১৮ ও ১৯  তারিখঃ ১৬.০৮.১৯ইং।  
এ ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন,মীরগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক হেলালুজ্জামান হেলাল,যুবলীগ সদস্য হারুন-অর রশিদ রাসেল, বালাগ্রাম ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি ইবনে নুর,ইন্দ্রোজিৎ রায়,ছাত্রলীগ কর্মী মিল্লাত হোসেন। সুত্রে জানা যায়, গত ১৫ আগষ্ট শোক দিবসের সংঘর্ষের ঘটনায় ওই দিন রাতে উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আনছার আলী মিন্টু বাদি হয়ে সাবেক এমপি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাসহ ৭০ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরও পাঁচ শত জনকে আসামি করা হয়। অপর দিকে একই দিনে পৌর আ’লীগ সভাপতি আশরাফ হোসেন বাদি হয়ে উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আনছার আলী মিন্টু,সাধারন সম্পাদক সহীদ হোসেন রুবেলকে প্রধান করে নামীয় ৬৩ ও অজ্ঞাত দুই’শ জনকে আসামি করা হয়। ওই দিনের সংর্ঘষের ঘটনায় জলঢাকা থানার এসআই মামুন-অর রশিদ হামলার শিকার হয়ে আহত হলে এসআই আব্দুর রশিদ বাদি হয়ে ২০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং আরো ১৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এ বিষয়ে জলঢাকা থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনার দিন একজন এবং শুক্রবার রাতে উভয় পক্ষের মামলায় ৪জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এ ঘটনায় গতকাল শুক্রবার সকালে দুপক্ষের সাথে বৈঠক করেছেন নীলফামারী জেলা আ’লীগ নেতারা। উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আনছার আলী মিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক সহীদ হোসেন রুবেলসহ তাদের সমর্থকদের সাথে পৌর আওয়ামীলীগ কার্যালয় এবং সাবেক এমপি গোলাম মোস্তফাসহ তার সমর্থকদের সাথে জলঢাকা সরকারী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে বৈঠকে বসে জেলা নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নীলফামারী জেলা আ’লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক এড.মমতাজুল হক, সাংগঠনিক সস্পাদক হাফিজুর রশিদ মঞ্জু ও শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আমজাদ হোসেন। বিকাল সাড়ে ৩টায় বৈঠক শেষে নীলফামারী জেলা সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, সমঝোতার জন্য দুই পক্ষের সাথে আলোচনা করছি। ভবিষ্যতে যাতে এর পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে বিষয়ে স্থানীয় নেতাদের হুশিয়ার করে দেওয়া হয়েছে। 
উল্লে¬খ্য গত ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে উপজেলা আ’লীগের শোকর‌্যালীতে সাবেক এমপি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাসহ তার সমর্থকরা হামলা চালালে দুইপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে বাঁধে। এতে পাঁচ পুলিশ সদস্যসহ সাতজন আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার  দুপুর ও বিকালে দু’দফায় জলঢাকা পৌরশহরে বঙ্গবন্ধু চত্ত্বর এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ ১৩ রাউন্ড টিয়ার শেল ও ১৫ রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 2682141889541333409

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item