ডিমলায় প্রথম শ্রেনীর ছাত্রকে হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ৩॥ রিমান্ডে

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী ২৭ আগষ্ট॥


নীলফামারীর ডিমলা উপজেলায় প্রথম শ্রেনীর  স্কুল ছাত্র সাবিদ হোসেনেরকে হত্যা মামলার অভিযোগে একই পরিবারের তিনজন বাবা,মা ও ছেলেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার ভোররাতে তাদের উপজেলার সদর ইউনিয়নের পচারহাট গ্রামের নিজবাড়ী হতে পুলিশ গ্রেফতার করে। এরা হলো আনিছুর রহমান নান্দুরা (৫০), তার স্ত্রী রাহিমা বেগম (৪০) ও ছেলে আল আমিন (২০)। তবে গ্রেফতারকৃতদের অভিযোগ পারিবারিক দ্বন্দের কারনে তাদেরকে এই হত্যা মামলায় জরিয়ে মিথ্যা আসামী করা হয়েছে। এদিকে গ্রেফতারকৃত মধ্যে আনিছুর রহমান নান্দুরা ডিমলা থানায় শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়লে প্রথমে তাকে ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা অবনতি হলে পুলিশ পাহারায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা করা হচ্ছে।
এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিমলা থানার এসআই মাহাবুব রহমান বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মা ও ছেলেকে আদালতের মাধ্যমে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হলে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।
 উল্লেখ যে গত শনিবার (২৪ আগষ্ট) দুপুর ১২টায় পচারহাট ব্যাঙ্গের ডাঙ্গা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেনীর ছাত্র বছরের সাবিদ হোসেন বিদ্যালয় ছুটির পর সে আর বাড়ী ফিরেনি। পরদিন রবিবার সকালে স্কুলের অদুরে একটি পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। সে ডিমলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের পচারহাট গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে। আব্দুস সালাম, তার স্ত্রী রুনা বেগম, মেয়ে শরিফা আক্তার (১০)সহ ঢাকায় থাকত। তার ছেলে সাবিদ হোসেন থাকতো একই এলাকার তার নানা  হামিদুল ইসলামের বাড়ীতে। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ৫জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে ডিমলা থানায়।



পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1371712266482519217

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item