সৈয়দপুরে অসামাজিক কার্যকলাপের সময় দুই নারী ও এক যুবকের কারাদন্ড ও অর্থ জরিমানা

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়, নীলফামারী ॥ দেহ ব্যবসা করতে গিয়ে নীলফামারী শহরের পুরাতন গরুহাটি সরকারপাড়া মহল্লার গৃহবধু লাবনী আক্তার(২৫) খদ্দের সোহেল(২৯) ও ভাড়াটিয়া রাবেয়া(৩৫) সহ ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে আটক হয়েছে।  শনিবার(২০ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে জেলার সৈয়দপুর উপজেলা শহরের নয়াটোলার একটি ভাড়াবাসা হতে তাদের আটক করা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) পরিমল কুমার সরকার লাবনী আক্তার ও খদ্দের সোহেলকে একমাস করে বিনাসশ্রম কারাদন্ড এবং ভাড়াটিয়া রাবেয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। 
লাবনী আক্তার জেলা শহরের পুরাতন গরুহাটি সরকারপাড়া মহল্লার আসাদুল ইসলামের স্ত্রী, খদ্দের সোহেল নীলফামারী সদরের সংগলশী দিঘলডাঙ্গী গ্রামের খয়রাত হোসেনের ছেলে এবং রাবেয়া বেগম সৈয়দপুর উপজেলার বাঙ্গালীপুর ইউনিয়নের লক্ষণপুর দোলাপাড়ার আব্দুল হামিদের মেয়ে।
এলাকাবাসীর অভিযোগ নয়াটোলা মহল্লার অক্সফোর্ড স্কুল সংলগ্ন মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সামসুল ইসলামের বাড়ি ভাড়া নেয় রাবেয়া বেগম। বাসা ভাড়া নিয়ে রাবেয়া বেগম দেহ ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। বিষয়টি বাড়ির মালিককে জানানো হলেও তিনি কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় এলাকাবাসী ওৎ পেতে থাকে ও শনিবার সকালে ভ্রাম্যমান আদালত ও পুলিশ কে খবর দিয়ে তাদের   হাতে নাতে আটক করে।
সৈয়দপুর থানার ওসি শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান লাবনী আক্তার ও খদ্দের সোহেলকে জেলা কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে।#

পুরোনো সংবাদ

সৈয়দপুর 1388886349851151253

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item