ডোমারে নারী কেলেঙ্কারী প্রধান শিক্ষক রাজু অবশেষে বরখাস্ত

বিশেষ প্রতিনিধি ২০ জুন॥ নীলফামারীর ডোমার উপজেলার উত্তর চান্দখানা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম বসুনিয়া রাজুর (৪৮) বিরুদ্ধে একাধিক নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগের সত্যতা পেয়ে তাকে চাকুরী হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (২০ জুন) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা।
সুত্র মতে রংপুর বিভাগীয় অফিসের উপ পরিচালকের নির্দেশে তাকে চাকুরী হতে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। সেই সঙ্গে ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার প্রস্তুতি চলছে। উক্ত প্রধান শিক্ষক উপজেলার কেতকীবাড়ি ইউনিয়নের বসুনিয়াপাড়া গ্রামের মৃত হায়দার বসুনিয়ার ছেলে।
অভিযোগে জানা যায় প্রথম স্ত্রী ও সন্তান থাকা অবস্থায় ওই শিক্ষক নারী কেলেঙ্কারী ঘটিয়ে আরো দুটি বিয়ে করে। ফলে তার বাড়িতে তিন স্ত্রী। এ অবস্থায় তার স্কুলের এক শিক্ষিকার স্বামী সন্তান থাকা সত্বেও ওই শিক্ষিকাকে ফাঁদে ফেলে তার ইজ্জত লুন্ঠন করে। এ ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে বাধ্য হয়ে ওই শিক্ষিকাকে বিয়ে করে। ওই বিয়ের  এক মাসের মাথায় চতুর্থ স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটালে আদালতে মামলা হয়। এতো সব ঘটনার পরেও সম্প্রতিকালে ওই প্রধান শিক্ষক এলাকার বোতলগঞ্জ রেলঘুন্টি গ্রামের ঢাকায় চাকুরিরত এক ব্যক্তির স্ত্রী ঘরে রাতে প্রবেশ করে ইজ্জত নেয়ার চেষ্টার সময় ওই গৃহবধুর চিৎকারে এলাকাবাসী উক্ত প্রধান শিক্ষককে হাতে নাতে আটক করে। কিছু প্রভাবশালী ব্যাক্তি তাকে ছিনিয়ে গেলে এলাকাবাসী বিষয়টি শিক্ষা মন্ত্রনালয় ও জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করে।
ওই সকলের অভিযোগের সঙ্গে আরো প্রকাশ পায় ওই শিক্ষক সৈয়দপুর উপজেলার এক কলেজ ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তুলে। ছাত্রীটি বিয়ের দাবি নিয়ে ওই শিক্ষকের বাড়িতে চলে আসে। কিন্তু এসে যখন জানতে পারে তার অনেক স্ত্রী তখন ওই ছাত্রী ট্রেনের নিচে ঝাপ দিয়ে আতœহত্যা করে।
এই সকল অভিযোগে গত ১২ জুন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ডোমার উপজেলায় তদন্ত ও এলাকাবাসীর সাক্ষ্য গ্রহন করতে গেলে  উক্ত প্রধান শিক্ষকের অপসারন ও  বিচারের দাবীতে উপজেলা শিক্ষা অফিস ঘেরাও করে এলাকাবাসী। এলাকাবাসীর অভিযোগ চরিত্রহীন প্রধান শিক্ষকের কারণে ওই স্কুলের  অভিভাকরা তাদের ছেলে মেয়েদের ওই স্কুলে পাঠাতে অনিহা প্রকাশ করে তদন্ত টিমের কাছে সাক্ষ্য প্রমান তুলে ধরে।
ঘটনার সত্যতা পেয়ে তদন্ত প্রতিবেদন শিক্ষা মন্ত্রনালয় ও বিভাগীয় অফিসে প্রেরন করে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা।
এদিকে প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম বসুনিয়া রাজুকে চাকুরী হতে সাময়িক বরখাস্তের খবর প্রকাশ হয়ে পড়লে এলাকাবাসী আনন্দ প্রকাশ করে। #

পুরোনো সংবাদ

শিক্ষা-শিক্ষাঙ্গন 7647370503733155153

অনুসরণ করুন

মুজিব বর্ষ

Logo

সর্বশেষ সংবাদ

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item