তোমার জেদ নিয়ে তুমি থাকো-আমি চলে গেলাম

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারী ১৮ জুন॥ আট মাস আগে বিয়ে হয়েছিল পিংকি আক্তারের (১৮)। আজ মঙ্গলবার দুপুরে স্বামীর বাড়ির নিজ শোয়ার ঘরে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় পাওয়া যায় একটি চিরকুট। সেখানে লিখা ছিল “তোমার জেদ নিয়ে তুমি থাকো, আমি চলে গেলাম।চিরকুটটি পিংকি তার স্বামীর উদ্যোশেই লিখে গেছে যা স্পষ্ট হয়ে উঠে। পিংকি জেলার ডোমার উপজেলার  সদর ইউনিয়নের ছায়াপাড়া গ্রামের সাজেদুল ইসলামের স্ত্রী ও একই উপজেলার বসতপাড়া গ্রামের আউয়াল হোসেনের মেয়ে।
পিংকির শ^শুরবাড়ির লোকজন জানায়, ঘটনার দিন সে সকালে ঘুম থেকে উঠে স্বাভবিক ভাবেই সংসারের কাজকর্ম ও সকালের নাস্তা করে। তার স্বামী কাজের জন্য বাড়ি হতে বেরিয়ে যায়। এরপর পিংকি অন্যান্য দিনের মতো নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে পুনরায় ঘুমাতে যায়। দুপুর ১টা বেজে গেলেও পিংকি র কোন সাড়া পাওয়া যাচ্ছিলনা। পরিবারে  লোকজন ডাকাডাকি করেও  সাড়া শব্দ না পেয়ে  ঘরের জানালার কপাট সরিয়ে দেখতে পাওয়া য়ায় ঘরের ভেতর পিংকি লাশ ঝুলছে। পরিবারের লোকদের আত্নচিৎকারে গ্রামবাসী ছুটে আসে। তাৎক্ষনিকভাবে খবর পেয়ে ডোমার থানা  পুলিশ এসে  ঘরের দরজা ভেঙ্গে গলায় ওড়না পেচানো পিংকির ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। সে সময় ওই চিরকুটটি পুলিশ পেয়ে জব্দ করে। 
 ডোমার থানার  মোস্তাফিজার রহমান বলেন চিরকুটির লিখা অনুযায়ী মনে হচ্ছে স্বামীর সঙ্গে মান অভিমানে  পিংকি আক্তার আক্তার আত্নহত্যা করেছে। মরদেহ উদ্ধার করে জেলার মর্গে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরন করা হয়। এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।#

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 1496421653170683804

অনুসরণ করুন

মুজিব বর্ষ

Logo

সর্বশেষ সংবাদ

শিল্প-সাহিত্য

ফেসবুক লাইকপেজ

তারিখ অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item