পীরগঞ্জ পুলিশের কৌশল ,যাত্রীবেশে অপহরনকারী গ্রেফতার, অপহৃতরা উদ্ধার !

মামুনুর রশিদ মেরাজুল পীরগঞ্জ (রংপুর)ঃ

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে রিক্সা যাত্রীবেশে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অপহরনকারীকে আটক ও ২ অপহৃতকে উদ্ধার করলেন পীরগঞ্জ থানার এসআই মোসলেম উদ্দিন। গত সোমবার রাতে ওই ঘটনায় পীরগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে।
মামলা সুত্রে জানা গেছে, গত ১ অক্টোবর সকাল ১০ টায় পীরগঞ্জের লালদীঘির মেলা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক মিয়া ও আব্দুল করিম মিয়াকে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীর সবুজ গং কৌশলে অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে অপহৃতদের পরিবারের কাছে অপহরনকারীরা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করে এবং ২ অক্টোবর রাত ৮ টার দিকে রিক্সাযোগে বালাটারী বাজারে ডাকে। এদিকে পীরগঞ্জ থানার এসআই মোসলেম উদ্দিন অপহৃতের পরিবারের একজন সহকারে টাকা নিয়ে ২ অক্টোবর দুপুরে নাগেশ্বরীতে যায়। রাত ৮ টার দিকে থানার এসআই মোসলেম উদ্দিন লুঙ্গি এবং ছেড়া গেঞ্জি গায়ে দিয়ে এবং অপহৃতের পরিবারের একজনকে নিয়ে নাগেশ্বরী থেকে প্রায় ৩ কি.মি দুরে বালাটারীতে গেলে অপহরনকারী দলের ২ সদস্য নুর আমিন ও আঙ্গুর মিয়া আসে। অপহরনকারী দলের সদস্যরা পরিচিত হওয়া মাত্রই এসআই মোসলেম অপহরনকারী নুর আমিনকে জাপটে ধরে, আঙ্গুর পালিয়ে যায়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বাগডাঙ্গা গুন্ডির চরের একটি বাড়ীর তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে অপহৃত আব্দুর রাজ্জাক মিয়া ও আব্দুল করিম মিয়াকে উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় বাড়ীর মালিক আব্দুল খালেক মিয়াকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। সে গ্রেফতারকৃত অপহরনকারী নুর আমিনের ভাই। অপহরনের ঘটনায় ৫জনকে এজাহারনামীয় আসামী করে পীরগঞ্জ থানায় মামলা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যায় রংপুরের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে অপহরনকারীরা ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী দিয়েছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে থানার ওসি রেজাউল করিম বলেন- অপহরনের খবর পাওয়া মাত্রই অপহৃতদের উদ্ধারে এসআই মোসলেমকে নির্দেশ দিয়েছি।

পুরোনো সংবাদ

রংপুর 5142307812337471716

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item