ধর্ষনের অভিযোগের মামলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী

ইনজামাম-উল-হক নির্ণয়,নীলফামারীঃ
জেলে বসে আজ সোমবার দিনাজপুর শিক্ষা বোডের অধিনে এসএসসি পরীক্ষা অংশ নেবে নীলফামারী সদরের সোনারায় সংগলশী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র আনোয়ার হোসেন (১৬)।  ধর্ষনের অভিযোগ এনে মেয়ে পক্ষ তাকে চার দিন আটকিয়ে রেখে ৫ দিনের মাথায় শনিবার সৈয়দপুর থানায় তুলে দিয়ে ধর্ষনের মামলা দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ছেলের পরিবার। পুলিশ  আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজাতে পাঠায়।
রবিবার আনোয়ার হোসেনের পরিবারের পক্ষে আইনজীবির মাধ্যমে আদালতের কাছে তার জামিন চাইলে আদালত জামিনের আবেদন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে থেকেই এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার আদেশ দিয়েছে। আনোয়ার হোসেন মানবিক বিভাগের এসএসসি পরীক্ষার রোল নম্বর হলো ৫৯০৭২৩। অপরদিকে রবিবার দুপুরে জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়। এ সময় মেয়েটি জানায় ছেলেটি বিয়ের নামে তাকে নস্ট করেছে।
সৈয়দপুর থানায় দায়ের করা মামলার (নম্বর ১০ তারিখ ৩০/০১/২০১৬) সুত্র মতে নীলফামারী সদর উপজেলা সংগলশী গ্রামের হামিদুল হকের ছেলে আনোয়ার হোসেন গত ২৫ জানুয়ারী সন্ধ্যায় জেলার সৈয়দপুর উপজেলার দক্ষিন সোনাখুলী মুন্সিপাড়া গ্রামে যায়। সেখানে সে ওই গ্রামের এসলাম উদ্দিনের ১৭ বছরের মেয়েকে (সাজেদা খাতুন)মোবাইলের মাধ্যমে বাড়ির বাহিরে ডেকে নেয়। এরপর বাড়ির অদুরে একটি বাঁশঝাড়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় মেয়েটিকে জোড় পূর্বক ধর্ষন করার সময় মেয়ের চিৎকারে মামলার বাদী মেয়ের মা তাহেরা খাতুন সহ এলাকাবাসী তাদের বিবস্ত্র অবস্থায় আটক করে।
এদিকে ধর্ষনে অভিযুক্ত আনোয়ার হোসেনের পিতা সাংবাদিকদের জানান ঘটনার কথা জানতে পেরে আমরা সেখানে যাই। কিন্তু ধর্ষনের কোন প্রমান কেউ দিতে পারেনি। তাই মেয়ে পক্ষ ঘটনাটি মিমাংসার জন্য বার বার ছেলে মেয়ের বিয়ের চাপ দিতে থাকে। অথচ ছেলে তাকে বলেছে মেয়েটির সাথে তার মোবাইলে গত ৫ মাস থেকে প্রেমের সর্ম্পক। তাদের মধ্যে খারাপ কোন কাজ হয়নি। মেয়ে পক্ষ তাকে বাড়িতে ডেকে বিয়ের চাপ দিয়ে আটকে রাখে। আনোয়ার হোসেনের পিতা বলেন ধর্ষনের ঘটনাটি সাজানো। মেয়ে পক্ষের আসল উদ্যেশ হলো জোড় করে বিয়ে দেয়া। কিন্তু ছেলে ও মেয়ে দুই জনেই নাবালক ও নাবালিকা। এ অবস্থায় বিয়ে দিলে বাল্য বিয়ের আইন অমান্য করা হয়। তিনি ঘটনাটি সুষ্ঠ তদন্তের দাবি করেন।
সৈয়দপুর থানার ওসি আমিরুল ইসলাম জানান আসামী সহ ধর্ষনের মামলা দায়ের করে মেয়ের মা তাহেরা খাতুন।এদিকে আদালতের আদেশে জেলা প্রশাসনের শিক্ষা শাখা আনোয়ার হোসেনের জেলা কারাগারে বসে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার প্রস্তুতি সম্পন্ন করে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 597274482993362496

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item