জলঢাকায় চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

মর্তুজা ইসলাম,জলঢাকা, নীলফামারী প্রতিনিধি-
নীলফামারীর জলঢাকায় গোলমুন্ডা ইউনিয়নের ভাবনচুর আদর্শ গ্রামে (সরকারী আবাসন প্রকল্প) চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। সে ওই গ্রামের জমসেদ আলীর মেয়ে এবং এলাকার চৈতন্যঘাট এফতেদায়ী মাদ্রাসার ছাত্রী।
গত বৃহস্পতিবার দুপুরের এ ঘটনায় রাতে থানায় অভিযোগ দায়ের হলে ধর্ষক মোস্তাফিজুর রহমান (১৮) পলাতক রয়েছে। সে (ধর্ষক) একই ইউনিয়নের ভাবনচুর বেলাল মেম্বার পাড়া গ্রামের জহুরুল হকের বখাটে ছেলে।

শুক্রবার দুপুরে ওই ছাত্রী জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে একই আদর্শ গ্রামের প্রতিবেশী হাফিজুর ছাত্রীকে ডেকে নেয় তার (হাফিজুর) বাড়িতে। এসময় সেখানে অবস্থানরত হাফিজুরের শ্যালক মোস্তফিজুর রহমান একটি ঘরে আটকিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। ছাত্রীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে  এসে তাকে উদ্ধার করে। এসময় ধর্ষক মোস্তফিজুর পালিয়ে যায়।
প্রতিবেশী হালিমা বেগম (৬০) ও মোশারফ হোসেন (৩৫) বলেন, চিৎকার শুনে আমরা এগিয়ে এসে ছাত্রীকে উদ্ধার করি। এসময় ধর্ষক মোস্তাফিজুর পালিয়ে যায়। এলাকাবাসি ঘটনার বিচার দাবি করলে বাড়ি মালিক হাফিজুরও পালিয়ে যায়।
ছাত্রীর মা ইসমত আরা বেগম বলেন, ‘তারা আমার মেয়েকে ফুসলিয়ে বাড়িতে ঢেকে  নিয়ে ধর্ষণ করে। এঘটনার বিচার চাই আমি।’
গোলমুন্ডা ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সদস্য (৪,৫,৬) মোর্শেদা বেগম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।
এব্যাপারে জলঢাকা থানার উপ-পরিদর্শক জহুরুল ইসলাম বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই ছাত্রীর বাবা জমসেদ আলী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পুরোনো সংবাদ

নীলফামারী 2045433385371814323

অনুসরণ করুন

সর্বশেষ সংবাদ

কৃষিকথা

ফেসবুক লাইকপেজ

আপনি যা খুঁজছেন

গুগলে খুঁজুন

আর্কাইভ থেকে খুঁজুন

ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুঁজুন

অবলোকন চ্যানেল

item